-->

যুদ্ধের বাইবেল "দ্য আর্ট অব ওয়ার" 🔥🔥

কিছু বই এমন আছে, যেগুলো এক বসায় শেষ করতে পারবেন কিন্তু এই শেষ করাটা আপনাকে প্রতিবারই আবার বইটির দিকে টেনে নিয়ে যাবে। আর প্রতিবারেই আপনি নতুন নতুন বিষয়

যুদ্ধ মানুষের জীবনে বিভিন্নভাবে সংঘটিত হয়ে থাকে। শুধু যে অস্ত্র হাতে নিয়ে যুদ্ধ করলেই যুদ্ধ, তা নয়। পৃথিবীর প্রতিটা মানুষ জীবন যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে, সংগ্রাম করে বেঁচে আছে।

যুদ্ধের বাইবেল "দ্য আর্ট অব ওয়ার"


আলোচ্য বইটিও আপনাকে শুধু সামরিক জ্ঞানই দিবেনা, বরং জীবনের প্রতিটি ধাপে আপনাকে পারদর্শী করে তুলবে। পৃথিবীর সর্বাধিক পঠিত বইসমূহের মধ্যে এটি অন্যতম।

আশ্চর্যের বিষয় হলো বইটি ২,৫০০ বছর আগে লিখা হলেও আজ অবধি এটি যুদ্ধের জন্য এক জ্ঞান ভান্ডার হিসেবে বিবেচিত হয়। বিখ্যাত সমর নায়ক মাও সেতুং, জেনারেল জিয়াপ, জেনারেল ম্যাক আর্থারের মতো বীরেরা এই বই অধ্যয়ন করতেন বলে জানা যায়। কথিত আছে, মহাবীর আলেকজান্ডারও এই বই মান্য করে চলতেন। এছাড়া আপনি যখন বইটি পড়বেন, তখন বুঝতে পারবেন কেন আড়াই হাজার বছরেও এই বইয়ের নিবেদন শেষ হচ্ছে না।
যুদ্ধের বাইবেল "দ্য আর্ট অব ওয়ার" 🔥🔥
যুদ্ধের বাইবেল "দ্য আর্ট অব ওয়ার" 🔥🔥

বাংলা সাহিত্যে যুদ্ধবিদ্যা সংক্রান্ত তেমন ভাল কোন বই নেই। যা আছে আমাদের মুক্তিযুদ্ধ নিয়েই, তাও আমাদের দেশে তেমন চর্চিত নয়। কিন্তু সত্য হল, এটাই আমাদের শেষ যুদ্ধ নয়, আমাদের সর্বদা আরেকটি যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে, আর এই প্রস্তুতিই আমাদের অন্যতম রক্ষাকবচ। হলফ করে বলা যায় যে, পরবর্তী যুদ্ধটা ৭১ এর থেকেও বেশি ভয়ানক হবে। আর আমাদের মত ছোট দেশে শুধুমাত্র সেনাবাহিনী যুদ্ধ করেনা, জনগণকে সম্পৃক্ত হতেই হয়। আর তাই যুদ্ধের টেকটিক্স, স্ট্র্যাটেজি এবং ম্যানুভার জানতে ও বুঝতে হবে।
জানলে কী হবে?
জানলে আপনি যেকোন যুদ্ধ সম্পর্কে গ্রহণযোগ্য ভবিষ্যতবাণী করতে পারবেন, যুদ্ধের গতি-প্রকৃতি বুঝতে পারবেন।


ইতোমধ্যেই কিন্তু আমরা দেখতে পাচ্ছি মিয়ানমারের সাথে বাংলাদেশের সামরিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। তারা সীমান্তে অতিরিক্ত সেনা মোতায়েনসহ ভারী অস্ত্র মজুদ করেছে এবং অসংখ্য ল্যান্ড-মাইন স্থাপন করেছে বর্ডারে। বছরের প্রথম দিকে তো স্যান্টমার্টিন পুরো দ্বীপ দাবি করে মানচিত্র প্রকাশ করে বসে!
এছাড়াও ভারতের সাথেও ভবিষ্যতে এনআরসি, সিএএ এবং অর্থনৈতিক প্রভাব বিস্তারের ইস্যুকে কেন্দ্র করে বাংলাদেশের সম্পর্ক ধীরে ধীরে খারাপ হবে। তাই আমার মতে প্রতিটা নাগরিকের এই বইটি পড়া দরকার ব্যক্তিগত এবং সার্বিক জীবনে শত্রু থেকে সর্বদা এক পা এগিয়ে থাকার জন্য।

আশ্চর্যজনক হলেও সত্য যে, বিশ্ববিদ্যালয় সমূহে বিবিএ, এমবিএসহ অনেক কোর্সে বইটির বিভিন্ন অংশ পড়ানো হয়। যাতে শিক্ষার্থীরা একটি কোম্পানি পরিচালনার সার্বিক জ্ঞানে পরিপক্ব হয়ে বাঁধাসমূহ মোকাবেলা করতে পারে এবং যেকোন বিপদ আগে থেকে বুঝতে পারে।

তেরটি অধ্যায়ে বিভক্ত বইটির মূল কপি খুব ছোট হলেও আমাদের চৌকস গুণী একজন মেজর এটা বিস্তারিতভাবেই অনুবাদ করেছেন। বইটি আড়াই হাজার বছর আগে চীনা সমরবিদ সানজু লিখেছেন তৎকালীন পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে। কিন্তু আমরা জানি যে, আমরা যতই আধুনিক হই, অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র তৈরি করি তীর ধনুকের স্থানে, যুদ্ধ কিন্তু মানুষ তথা সেনাপ্রধানই পরিচালনা করেন এবং করবেন। এছাড়াও যুদ্ধে প্রাকৃতিক অবস্থা এবং আবহাওয়াকে কখনো আপনি এড়িয়ে যেতে পারবেন না। এগুলোসহ আরো অনেক কারণেই আড়াই হাজার বছর আগের লিখা বইটিকে এখনো যুদ্ধের বাইবেল বলে বিশ্বাস করে অনেকেই। আর এই উপাধিটা যে কতটা সত্য এবং এখানে লিপিবদ্ধ অমূল্য সমরবিদ্যার ব্যত্যয়ে যে এখনো যুদ্ধে পরাজয় ঘটে, তার প্রমাণ গুণী লেখক প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ, আরব-ইসরায়েল, কুয়েত-ইরাকসহ বিভিন্ন যুদ্ধের ঘটনার মাধ্যমে প্রমাণ করেছেন।


এই বইটির জন্য প্রথমে সানজু'র কাছে, পরে কৌশলি লেখক মেজর সাহেবের নিকট কৃতজ্ঞ হওয়া উচিত আমাদের। কারণ বইটির প্রতিটা পয়ন্ট বর্ণনা করা ছাড়া সরল অনুবাদ পড়ে বোঝা সম্ভব নয়, এর সাথে লেখক প্রয়োজনীয় যুদ্ধের ঘটনাবলী উল্লেখের মাধ্যমে বইটিকে একজন সাধারণ পাঠকের নিকটেও সহজবোধ্য করে তুলেছেন।

বইটির পরিচিতি বা রিভিউ করার মত যোগ্যতা আমার নেই, যতই লিখি কম মনে হয়। পরিশেষে শুধু এতটুকুই বলবো, এই বইটি পড়ার পর মনে হয়েছিল, এমন অমূল্য জ্ঞান এই সামান্য কাগজে কিভাবে বিধিবদ্ধ করে ফেললাম আমরা (মানুষ)!


কিছু বই এমন আছে, যেগুলো এক বসায় শেষ করতে পারবেন কিন্তু এই শেষ করাটা আপনাকে প্রতিবারই আবার বইটির দিকে টেনে নিয়ে যাবে। আর প্রতিবারেই আপনি নতুন নতুন বিষয় আবিষ্কার করতে পারবেন।

সমরবিদ্যা নিয়ে আরো কয়েকটি বিখ্যাত বিদেশি বই আছে, যেমন ক্লসউইৎজে'র "প্রিসিপালস অব ওয়ার" , ম্যাকিয়াভ্যালির একই নামে "দ্য আর্ট অব ওয়ার"। কিন্তু কোন বইকে আপনি এর সমকক্ষ বলতে পারবেন না।

ANALYSING THE WORLD

Author & Editor

International Political Analyst and Content Writer.

0 comments:

Post a Comment

Please do not enter any spam link in the comment box.